আজকাল অ্যান্ড্রয়েড মোবাইল আছে আর সে ফেসবুক ব্যবহার করেনা এমন মানুষ পৃথিবীতে অনেক কম দেখা যায়। এখন কথা হলো ফেসবুকের মেসেঞ্জারে আমরা আমাদের ফেসবুক ফ্রেন্ড অনেকের সাথে কথা বলে থাকি। কিন্তু আমরা অনেক সময় একটা বিপদে পড়ে যাই, বুঝতে পারিনা আমরা যার সাথে চ্যাট করছি সে মেয়ে নাকি কোন ছেলে মানুষ। অনেক সময় দেখা যায় প্রোফাইলে যদি একটা মেয়ের ছবি থাকে, এবং নামটা যদি কোন মেয়ের নামে থাকে তাহলে আবেগে প্রেমে পড়ে যান। আর আপনি চ্যাট করার জন্য চেষ্টা করেন। আবার অনেক সময় প্রোফাইলে সুদর্শন কোন যুবকের ছবি থাকে এবং আপনি তার সাথে চ্যাট করার চেষ্টা করেন। আর এই জন্য আজকের টিউন খুব স্পেশাল। হতে পারে আজকের এই টিউনের জন্য আপনার জীবন বেছে যেতে পারে। বন্ধুরা চলুন আর দেরি না করে মূল টপিকে চলে যাই।

প্রথমে আমি বলব মেসেঞ্জার, WhatsApp, ইমু প্রসেস কিন্তু একি।

তবে WhatsApp ইমু থেকে একটু আলাদা আর নাম্বার ছাড়া এড হওয়া যায়না, মেসেঞ্জার তার থেকে ভিন্ন শুধু ফেসবুকে এড হলেই আপনি যেকোনো মানুষের সাথে মেসেঞ্জারে কথা বলতে পারবেন। বন্ধুরা এখন কথা হলো আপনি ফেসবুকে মিষ্টি একটি মেয়ের ছবি দেখে বা সুদর্শন একটি যুবকের ছবি দেখে আবেগে চ্যাট করতে চাচ্ছেন। বন্ধুরা কিন্তু চ্যাট করার সময় আমরা একটা বিপদে পড়ে যাই। আমরা সঠিক বুঝতে পারি না আসলে আমরা মেয়ের সাথে চ্যাট করছি নাকি কোন মেয়ের সাথে। আপনাকে একটা কথা সব সময় মাথায় রাখতে হবে, কারো সাথে বন্ধুত্ব করার আগে চিনে নেওয়া খুব গুরুত্বপূর্ণ। আপনাকে শুধু ছবি আর ভয়েছ দিলেই যে সঠিক চিনে নিবেন তা কিন্তু না। বর্তমানে এই বড় সমস্যা শুধু মেসেঞ্জারে না ইমু সহ WhatsApp এ ও হচ্ছে। আপনি শুধু সুন্দর একটি মেয়ের ছবি দেখে চ্যাট করেন ও বলেন ভয়েস দেন ভয়েস দিলে নিশ্চিত হবো আপনি চেলে নাকি মেয়ে। কিন্তু বন্ধুরা এখন ভয়েস কিনা ও যায়। ভয়েস কিনা যায় টাকার মাধ্যমে, আপনি যেই ভয়েস চাইবেন সেই ভয়েস টাকার বিনিময়ে পাবেন। আপনাকে ভয়েস দিয়ে বলতে পারে আপনি বিশ্বাস করছে না কেন যে আমি মেয়ে। বন্ধুরা এই রকম ধুকায় আপনি পড়বেন না। এখন আপনি বলতে পারেন এই এটাকে চিনার মতো কি কোন সফটওয়্যার নেই। আমি বলব না এরকম কোন সফটওয়্যার নেই। আপনি বুঝতে পারবেন একমাত্র ভিডিও কলের মাধ্যমে।

*************ধন্যবাদ সবাইকে ভালো থাকবেন ****************