আগামী ২৫শে এপ্রিল রবিবার থেকে দোকানপাট-শপিংমল খোলার তারিখ ঘোষনা করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। শুক্রবার এই প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর‌্যন্ত দোকাটপাট-শপিংমল খোলা থাকবে। মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি।

এর আগে গতকাল বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি সভাপতি মো. হেলাল উদ্দিন জানিয়েছিলেন, দোকান খুলে দেয়ার বিষয়ে দুপুরে আমরা মন্ত্রিপরিষদ সচিবের সঙ্গে বৈঠক করেছি। এ বিষয়ে রোববার তিনি আমাদের সিদ্ধান্ত জানাবেন। করোনার মহামারির এই সময়ে জীবন যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি জীবিকারও প্রয়োজন রয়েছে। দোকান বন্ধ থাকায় লাখ লাখ মালিক ও শ্রমিক বেকার হয়ে পড়েছে। তাদের কথা চিন্তা করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আমরা মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে অনুরোধ করেছি। একই সঙ্গে ঈদের আগে প্রণোদনা হিসাবে সরকারের কাছে ৪৮ হাজার ৩৫৪ কোটি টাকা ঋণ দেওয়ার দাবি জানিয়েছি।

এসময় মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক উপস্থিত ছিলেন।

গত ৪ এপ্রিল করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে সারা দেশে এক সপ্তাহের কঠোর বিধিনিষেধ জারি করে সরকার। পরদিন থেকেই দোকানপাট খুলে দেওয়ার দাবিতে রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ করে দোকান মালিক ও শ্রমিকরা। যদিও চলমান বিধি নিষেধের মধ্যে হোটেল, ফার্মেসী, শিল্প কারখানা খোলা রয়েছে। রাজধানীতে ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল বাড়লেও বন্ধ রয়েছে দূরপাল্লার যানবাহন।